1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. ittehadnews24@gmail.com : ইত্তেহাদ নিউজ২৪ : ইত্তেহাদ নিউজ২৪
রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৬:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ওয়াশিংটন পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী বহুদলীয় গণতন্ত্রের নামে দেশে বিরাজনীতিকরণ চলছে -গোলাম মোহাম্মদ কাদের শুরু হলো ১৭ দিনব্যাপী ‘বঙ্গবন্ধু-বাপু’ ডিজিটাল প্রদর্শনী ৪-২৫ অক্টোবর ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ প্রধানমন্ত্রীকে ‘ক্রাউন জুয়েল’ উপাধিতে ভূষিত করায় যুবলীগের আনন্দ মিছিল দেশে বিনিয়োগ করুন : প্রবাসীদের প্রতি প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নতুন বই ‘শেখ হাসিনা : বিমুগ্ধ বিস্ময়’ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের পূর্ণ বিবরণ মালির রাজধানী বামাকোতে ১৪০ জন পুলিশ সদস্যের জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা পদক লাভ ওসি হতে পারেন হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা : আইজিপি

ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)-এর ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন ছবি প্রকাশ্যে প্রদর্শনের বিষয়ে বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহর আমীর ছারছীনা শরীফের আ’লা হযরত পীর ছাহেব কেবলার প্রতিবাদ

  • আপডেট করা হয়েছে মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪৪৪ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ

আমরা গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করছি যে, ইসলাম বিদ্বেষী ইহুদী-নাসারা চক্র ইসলাম, মুসলামান ও ইসলামের নবীকে নিয়ে ক্রমাগত ভাবে কুৎসা রটনা, ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন নির্মাণ, কুরুচিপূর্ণ সাহিত্য রচনা এবং হিংসা-বিদ্বেষ উস্কে দেয়ার মত ঘটনা একের পর এক সংঘটিত করে চলেছে। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কাল্পনিক ব্যঙ্গাত্মক কার্টুন ছবি প্রকাশ্যে টানানো হয়েছে। নবীজীর জন্মের মাস মাহে রবিউল আউয়ালে যখন বিশ্ব মুসলিম আনন্দে উদ্বেলিত হয়ে তাঁর আদর্শকে আঁকড়ে ধরার শপথ নিয়ে থাকে ঠিক তখনি তাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে ফ্রান্সের মত একটি আধুনিক তথাকথিত সভ্যতার ধ্বজাধারী রাষ্ট্রের কর্মকান্ড দেখে। বিপথগামী কেউ এহেন ঘৃণ্য কাজ করে থাকলে রাষ্ট্রীয় প্রশাসন যন্ত্রের হস্তক্ষেপে তাকে নিবৃত করা হলে বিষয়টি অঙ্কুরেই শেষ হয়ে যেত। কিন্ত ফ্রান্স দেশের কর্ণধার যখন এই ঘৃণ্য কর্মকে বাক স্বাধীনতা বলে সমার্থন করেন এবং পুলিশী প্রহারা বসিয়ে সেই কার্টুন অপসারণ প্রতিরোধ করেন তখন ঠিকই প্রশ্ন জাগে তারা কী চায়?

  • তারা চায় মুসলমানদের উস্কে দিতো। কেননা তারা ভাল করেই জানে যে, মুসলমান একটি সুসভ্য জাতী। তারা কখনো অন্য ধর্মের নবী বা অবতার যতই তারা মিথ্যা ও বিকৃত হোক অবমাননা করবে না।

  • তারা চায় মুসলমানদের অন্তরে রক্তক্ষরণ করতে। কেননা তারা জানে মুসলমান মাত্রের নিকটে তাদের নবী তাদের সকল কিছু এমনকি প্রাণের থেকেও প্রিয়।

  • তারা চায় শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ ও বিক্ষোভকে জঙ্গীবাদ আখ্যা দিয়ে মুসলমানদের নামের পাশে জঙ্গী তকমা পাকাপোক্ত করতে।

  • তারা চায় বিশ্বময় ইসলামী জাগরণকে প্রতিহত করতে। কেননা তারা দেখছে শত বিরোধিতার মধ্যেও দিন দিন মুসলমানদের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সত্য সন্ধানী লোকেরা অলীক ও বিকৃত ধর্মের বেড়াজাল ছিন্ন করে দলে দলে ইসলামের সুশীতল ছায়াতলে আশ্রয় নিচ্ছে।

  • তারা চায় ইসলামের প্রতি তাদের ভীতিকে ধামাচাপা দিতে। কেননা ‘আগামীর বিশ্ব ইসলামের বিশ্ব’ একথা আজ আর শুধু কথার কথাই নয় বরং মুসলমানরা নামে বেনামে বর্তমান বিজ্ঞানের এ চরম উৎকর্ষতার যুগেও বিশ^ সভ্যতা বিনির্মানে শিক্ষা-দীক্ষা, উৎপাদন ও মানবিকতার ক্ষেত্রে ঈর্ষণীয় ভ‚মিকা পালন করছে। ইতোমধ্যে সকল ইসলাম বিদ্বেষী চক্র তাদের সকল শক্তি ব্যয় করেও ইসলামকে বিজ্ঞানের বিপক্ষে দাঁড় করাতে ব্যর্থ হয়েছে। বরং দিন যত যাচ্ছে বৈজ্ঞানিক আবিষ্কার ও থিওরী ইসলাম ও কুরআনের দিকেই ধাবিত হচ্ছে।

সুতরাং আমি জমইয়াতে হিযবুল্লাহ্, যুব হিযবুল্লাহ্ ও ছাত্র হিযবুল্লাহর সকল পর্যায়ের নেতা,কর্মী,সদস্য, পীরভাই মুহিব্বীন এবং ধর্মপ্রাণ মুসলমানদেরকে নিজ নিজ জেলা,মহানগর ও উপজেলায় বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহর ব্যানারে সামাজিক দুরত্ত বজায় রেখে শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন পালনের মাধ্যমে নিম্মোক্ত বার্তা বিশ্বময় ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।

  • ফ্রান্সে নির্মিত ও প্রদর্শিত মহানবী হযরত মুহাম্মদ মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের ব্যঙ্গচিত্র অবিলম্বে অপসারণ ও ধ্বংস করতে হবে। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গকে অন্যের ধর্মে ইচ্ছা প্রণোদিত ভাবে আঘাত করার কারণে ব্লাসফেমী আইনে বিচার করার দাবী জানাচ্ছি।

  • বাংলাদেশ সরকারকে ফ্রান্স সরকারের নিকট কড়া প্রতিবাদ জানান সহ কুটনৈতিক পদক্ষেপ গ্রহণ করতে আহবান জানাচ্ছি।

  • ও.আই.সি. সহ সকল মুসলিম রাষ্ট্র প্রধানকে এ বিষয়ে ঐক্যমত্য হয়ে কোন দেশে যেন আর এহেন ঘৃণ্য কর্ম সংঘটিত না হয় তজ্জন্য বিশ্ব ফোরামে দাবী উত্থাপন করে বিশ্ববাসীকে সতর্ক করার আহবান জানাচ্ছি।

  • ফ্রান্স যদি অবিলম্বে আপত্তিকর কার্টুন অপসারণ ও ধ্বংস না করে তবে মুসলিম জন সাধারণকে ফ্রান্সে ভ্রমন না করতে, ফ্রান্সের নাগরিকদের কোন মুসলিম দেশে ভিসা না দিতে, ফ্রান্সের পন্য বর্জন করতে এবং তাদেরকে চাকুরীতে নিয়োগ না করার বিষয়ে ঐক্যবদ্ধ হবার আহবান জানাচ্ছি।

  • ঈমানী দায়িত্ব পালনের অংশ হিসেবে আমাদের শান্তিপুর্ণ প্রতিবাদ অব্যাহত রেখে দুরুদে সাইফুল্লাহ্ ও হাস্বুনাল্লাহর দোয়া নিয়মিত আমল করার মাধ্যমে কুচক্রি মহলের বিরুদ্ধে আল্লাহ্ রাব্বুল ইজ্জতের সাহায্য কামনার আহবান জানাচ্ছি।

  • মুসলিম বিশ্বকে পরস্পর দ্বন্দ-কলহ পরিহার করে পারস্পারিক সহযোগিতার মাধ্যমে মুসলিম জাতিসংঘ স্থাপন করে ইসলামের হারানো গৌরবজ্জল সুদিন ফিরিয়ে আনতে তৎপর হবার আহবান জানচ্ছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন